সর্বশেষ সংবাদ

চালু হতে না হতেই ইভ্যালিকে সতর্ক করে চিঠি দিলো বাণিজ্য মন্ত্রণালয়

আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি গত ২৮ অক্টোবর নতুন করে ফের ব্যবসায়িক কার্যক্রম শুরু করেছে। গ্রাহক, ব্যবসায়ী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশের অংশ হিসেবে ইভ্যালি নতুন ব্যবসায়িক কার্যক্রমের নামকরণ করে ‘ধন্যবাদ উৎসব’।

তবে নতুন ব্যবসায়িক পরিকল্পনা ও আগের সব ব্যবসায়িক সমস্যা সমাধানের ব্যাপারে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ চায় ইভ্যালি। ইভ্যালি ডটকম লিমিটেডের চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন এ পরামর্শ চেয়ে গত সোমবার (৩১ অক্টবর) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন।

পরামর্শের বদলে এক দিনের ব্যবধানেই মঙ্গলবার (০১ নভেম্বর) বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ইভ্যালিকে নতুন চিঠি পাঠিয়ে জানিয়েছে, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানটি বেআইনিভাবে ‘গিফট কার্ড’ বিক্রি করছে। এ কার্যক্রম বন্ধ না করলে ইভ্যালির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইভ্যালির চিঠিতে জানানো হয়, ঢাকায় ইভ্যালির প্রধান কার্যালয়ে গত ১১ অক্টোবর নতুন পর্ষদের প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, হাইকোর্টের নির্দেশনা ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিধিবিধান অনুযায়ী ইভ্যালি ভবিষ্যৎ ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করবে। নতুন পর্ষদ আগের ব্যবসায়ীদের সমস্যা ও ভোক্তাদের সব দাবি নিরসনে কাজ করবে। তবে এ ব্যাপারে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ খুব প্রয়োজন।

যোগাযোগ করলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কেন্দ্রীয় ডিজিটাল কমার্স সেলের প্রধান মো. হাফিজুর রহমান বলেন, সব ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানেরই ভালো চায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। তারা ভালো ব্যবসা করুক। তবে পরামর্শ বলতে ইভ্যালি কী বোঝাতে চেয়েছে, তা স্পষ্ট নয়।

হাফিজুর রহমান আরও বলেন, ‘ডিজিটাল কমার্স পরিচালনা নির্দেশিকা অনুযায়ী গিফট ভাউচার বিক্রির নিয়ম নেই। কিন্তু ইভ্যালি তা করছে। আমরা তাদের এ কার্যক্রম বন্ধ করতে চিঠি পাঠিয়েছি।’

ইভ্যালির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন চিঠি পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, ‘আড়ং, স্বপ্নের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো যেভাবে গিফট কার্ড বিক্রি করে, আমরা সেভাবেই করছিলাম।’ এর বাইরে কিছু বলতে চাননি তিনি।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ৪ জুলাই জারি হওয়া ডিজিটাল কমার্স পরিচালনা নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, সব ধরনের ডিজিটাল ওয়ালেট, গিফট কার্ড, ক্যাশ ভাউচার বা অন্য কোনো মাধ্যম, যা অর্থের বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে, তা বাংলাদেশ ব্যাংকের বিদ্যমান নীতিমালা অনুসরণ এবং প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমতি ছাড়া তৈরি, ব্যবহার বা কেনাবেচা করা যাবে না।

সম্প্রতি ইভ্যালির পেজে দেখা যায়, ‘ও কোড’ নামের একটি ফ্যাশন হাউস থেকে পোশাক কেনার জন্য ৫৯ শতাংশ ছাড়ের অফার দেওয়া আছে। ইভ্যালি থেকে ২ হাজার, ৫ হাজার ও ১০ হাজার টাকার স্মার্ট গিফট কার্ড কিনে এ অফার ভোগ করা যাবে।

গত ২৮ অক্টোবর হাইকোর্টের আদেশের পর ইভ্যালির কার্যক্রম পুনরায় চালু হয়। কোম্পানিটি পরিচালনার জন্য পাঁচ সদস্যের নতুন একটি পরিচালনা পর্ষদও গঠন করা হয়। নতুন বোর্ডে ইভ্যালির সাবেক চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন, শামীমার মা ফরিদা তালুকদার লিলি এবং তার বোনের স্বামী মো. মামুনুর রশীদকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

গত বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর এক গ্রাহকের দায়ের করা মামলায় ইভ্যালি প্রধান মোহাম্মদ রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এরপর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের রিমান্ডে নেওয়া হয়। গ্রেপ্তারের আট মাস পর (৮ এপ্রিল) শামীমা সব মামলায় জামিন পান।

আরও পড়ুন

রাতের তাপমাত্রা কমবে, আবার বাড়বে শীত

সারা দেশে ফের এক থেকে দুই ডিগ্রি তাপমাত্রা কমতে পারে। এতে শীতের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী,...

শীতের মধ্যে সারাদেশে টানা তিন দিন বৃষ্টির আভাস

দেশের ২৭ জেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ। চলতি মৌসুমে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে মঙ্গলবার সকালে। চুয়াডাঙ্গা ও...

সেরা পঠিত