সর্বশেষ সংবাদ

ফেনীতে বিচারের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

ফেনী প্রতিনিধি: ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের স্বরাজপুরে বীরমুক্তিযোদ্ধা মরহুম বদিউর রহমানের পরিবারের সদস্যদের অব্যহত হুমকি, হামলা, উচ্ছেদ চেষ্টা ও মালামাল লুটের ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবীতে শনিবার (৮জুলাই) বিকালে সোনাগাজী রিপোর্টার্স ইউনিটির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভূক্তভোগী পরিবার।

এসময় উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে লিখিত বক্তব্য প্রদান কালে বীরমুক্তিযোদ্ধা মরহুম বদিউর রহমানের স্ত্রী আমেনা খাতুন ও পুত্র নুর হোসেন সোহাগ বলেন, জাতির পিতার সুযোগ্য সন্তান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের “বীর নিবাস” প্রকল্পের আওতায় আমরা একটি ঘর বরাদ্ধ পাই। গত ২০২২সালের জুন মাসে “বীর নিবাস” নির্মানের সময় আমাদের পুরাতন ঘরটি ভেঙ্গে পাশের একটি জায়গায় চাপড়া ঘর দিয়ে বসবাস করি।

গত ২৭ এপ্রিল তারিখে এলাকার চিহ্নিত অপরাধী ও মাদক কারবারী নুর হোসেন রায়হানের নেতৃত্বে আবদুল আজিজ আজাদ, সাইফুল ইসলাম সাগর, আবু হানিফ বাবু, এমদাদুল হক, মো. রিফাত সহ আরো কয়েকজন মিলে লাঠি সোটা নিয়ে আমাদের ঘরে অনধিকার প্রবেশ করে সবাইকে ঘর থেকে বের হয়ে যেতে বলে। এসময় আমরা প্রতিবাদ করলে উশৃঙ্খল যুবকেরা ঘরের লোকজন কে জিম্মি করে ব্যাপক ভাংচুর চালায় এবং ঘরের চালের টিন খুলে নিয়ে যায়। এতে অন্তত এক লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয় আমাদের।

বসত ঘরের টিন খুলে নিয়ে যাওয়ার মত এমন নারকীয় ঘটনায় হতভম্ব হয়ে আমরা স্থানীয় ইউপি সদস্য আজাদ হোসেন কিরণ, ইউপি চেয়ারম্যান রবিউজ্জমান বাবু, পৌর যুবলীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন অপু কে অবগত করি। পরে চেয়ারম্যান এবং অপু মিয়া এই ঘটনায় আপোষ মিমাংশার চেষ্টা করলেও প্রতিপক্ষের লোকজন তা না করে আমাদের কে উল্টা হুমকি ধুমকি দিতে থাকে।

পরে উপায়ন্তর না দেখে গত ২৬জুন তারিখে আমরা ফেনীর সিনিয়র জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্টেট আমলী আদালতে মামলা দায়ের করি, মহামান্য আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে সোনাগাজী থানার অফিসার ইনচার্জ কে ঘটনা তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন।

এদিকে আদালতে মামলা দায়েরের খবর শুনে আরো ব্যাপরোয়া ও উশৃঙ্খল হয়ে উঠে নুর হোসেন রায়হান, আবদুল আজীজ আজাদ ও তাদের অপরাপর সহযোগীরা। তাদের অব্যহত হুমকি ধুমকিতে আমরা পুরো পরিবার এখন নিরাপত্তা হীনতায় ভূগতেছি।

সংবাদ সংবাদ সম্মেলনে তারা আরো বলেন, মামলার প্রধান আসামী রায়হান একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারি, ইতোপূর্বো মাদকের চালান নিয়ে এবং ডাকাতির প্রস্তুতি কালে সে একাধিক বার পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলো, কিন্তু প্রতিবারই জেলখানা থেকে বের হয়ে সে আরা ব্যাপরোয়া হয়ে উঠে। এরা যেকোন সময় আমাদের উপর আবার হামলা করতে পারে।

আমাদের পরিবারের উপর জুলুম নির্যাতনে জড়িত এসব সন্ত্রাসী ও অপরাধী লোকজনের দৃষ্টান্ত মূলক বিচার চাই, এবং এদের হাত থেকে বীরমুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রশাসনের সদস্যদের সহযোগিতা চাই। এসময় সংবাদ সম্মেলনে বীরমুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যগণ এবং স্থানীয় সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

এসএইচ

আরও পড়ুন

তীব্র তাপপ্রবাহে বেঁকে গেছে রেললাইন, ঢালা হচ্ছে পানি

তীব্র তাপপ্রবাহে ঈশ্বরদীতে বেঁকে গেছে রেললাইন। শুক্রবার দুপুরে ঈশ্বরদী বাইপাস রেলওয়ে ষ্টেশনের কাছে রেললাইনের পাত বেঁকে যায়। এতে করে রাজশাহীগামী কপোতাক্ষ ট্রেন প্রায় এক...

মহাসড়কে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করলেন ইউএনও

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: তৈরিকৃত ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছেন টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ নূরুল আলম। সোমবার (৮ এপ্রিল) ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের...

সেরা পঠিত