ঢাকা    ৭ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



গোপালপুরে আতঙ্ক ছড়ানো বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি বোমা নয়

প্রকাশিত: ১:০৫ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২১

গোপালপুরে আতঙ্ক ছড়ানো বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি বোমা নয়

মো. নুর আলম, গোপালপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের গোপালপুরে দিনভর আতঙ্ক ছড়ানো বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি বোমা নয় বলে জানিয়ে বোম ডিসপোজাল ইউনিট। সকালে বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি দেখতে পেয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

 

পরে বিকেলে বোম ডিসপোজাল ইউনিট এসে বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি উদ্ধার করে। তবে এখনো আতঙ্কে রয়েছে পরিবারটি।

 

কাউন্ডার টেরিজমের বোম ডিসপোজাল ইউনিটের সাব-ইন্সপেক্টর গোলাম মর্তুজা জানান, বোম ডিসপোজাল ইউনিটের ৪ সদস্যের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধার করলে দেখা যায় সেটি বোমা নয়। সেখানে ৭টি প্লাস্টিকের পাইপ, ভেতরে ৪টি পেন্সিল ব্যাটিরী, মোবাইলে ডিসপ্লে, বিদ্যুতের তাড় ও পাটের শোলা ছিলো। উপরে লাল কচটেপ দিয়ে পেছিয়ে বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি তৈরী করা হয়েছিলো।

 

গোপালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মামুন ভূঁইয়া জানান, ঢাকা থেকে বোম ডিসপোজাল ইউনিট এসে বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি উদ্ধার করে। পরে খুলে পাইপের টুকরা, পেন্সিল ব্যাটারি ও পাটের শোলা কচটেপ প্যাছানো ছিলো। ভয় দেখানোর উদ্দেশ্যে দুর্বৃত্তরা এ কাজ করেছে। বিষয়টি প্রকাশ হওয়ার পর আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। এ ঘটনায় যে করেছে তাকে খুঁজে বের করে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

উল্লেখ্য, টাঙ্গাইলের গোপালপুরে নন্দনপুর এলাকায় সকালে আব্দুল রাজ্জাকের নির্মানাধীণ ভবনের গেটে চিঠির মাধ্যমে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেছে দুর্বৃত্তরা। টাকা না দিলে আব্দুল রাজ্জাক ও তার বোনকে প্রাণ নাশকের হুমকি দেয়। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে তারা বোম ডিস্পোজাল ইউনিটকে খবর দেয়। পরে তারা এসে বিকেলে বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি উদ্ধার করে।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!