ঢাকা    ৭ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



চতুর্থ বারের মতো আবারো তরুণ সেরা করদাতা তৌহিদ হোসেন

প্রকাশিত: ১২:৫৫ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২১

চতুর্থ বারের মতো আবারো তরুণ সেরা করদাতা তৌহিদ হোসেন

সাইফুল ইসলাম মুকুল, রংপুর ব্যুরো: ২০২০-২১ অর্থ বছরের রংপুর কর অঞ্চলের ১নং সেরা সর্বোচ্চ করদাতা পরপর চতুর্থ বারের মতো সম্মাননা গ্রহণ করেছেন রয়্যালটি মেগা মলের চেয়ারম্যান ও সুমি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। আজহাজ্ব মোঃ তৌহিদ হোসেন। এর আগে ২০১৮ ও ২০১৯ এবং ২০২০ সালেও তরুণ সম্মাননা পেয়েছিলেন তিনি।

 

২০২০-২১ কর বর্ষের সর্বোচ্চ কর প্রদান অনুষ্ঠানে তরুণ সেরা করদাতা রাষ্ট্রীয় সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোাস্তফা।

 

বুধবার বিকেলে রংপুর আরডিআরএস ভবনের বেগম রোকেয়া অডিটোরিয়ামে রংপুর কর অঞ্চলের অধিক্ষেত্রাধীন রংপুর সিটি কর্পোরেশন ও জেলা ভিত্তিক সর্বোচ্চ ও দীর্ঘসময় আয়কর প্রদানকারী সেরা করদাতাদের সম্মাননা সনদ ও ক্রেস্ট প্রধান অনুষ্টানের আয়োজন করেন।

 

রংপুর কর অঞ্চলের কর কমিশনার আবু হান্নান দেলওয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে বিষেশ অতিথির বক্তব্য রাখেন রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি দেবদাস ভট্রাচার্য্য, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার আবদুল আলীম মাহমুদ, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) আবু তাহের মোঃ মাসুদ রানা, রংপুর কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের কমিশনার শওকত আলী সাদী প্রমুখ।

 

এসময় রংপুর কর অঞ্চলের ১নং সেরা সর্বোচ্চ করদাতা তৌহিদ হোসেন বলেন, দেশের উন্নয়নে আয়কর দাতাদের ভূমিকাকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। উন্নয়নের সাথে করদাতাদের সম্পর্ক নিবিড়। দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির জন্য সময়মতো ও সঠিক নিয়মে কর প্রদানের কোন বিকল্প নেই। ১৬ কোটি মানুষের দেশে কেবল ২৫ লাখ মানুষের কর দেওয়ার বিষয়টি সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। সময়মতো কর দিলে দেশের উন্নয়নও সঠিক সময়ে হবে।

 

টানা চতুর্থ বারের সোর করদাতা তৌহিদ বলেন, দেশের জাতীয় বাজেটের ৯০ শতাংশের যোগান দেয় দেশের মানুষ। দেশের সবাই ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে দেশের স্বার্থে ও আগামী প্রজন্মের কথা ভেবে কর দিলে দেশ সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে যাবে। জনগণকে কর প্রদানে উদ্বুদ্ধ করতে প্রতিবছর জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) দেশের সেরা করদাতাদের সম্মানিত করে আসছে।

 

তৌহিদ হোসেন আরও বলেন, আমি টানা তৃতীয় বারের মতো তরুণ সেরা করদাতা হয়ে আসছি। তবে এবার আমি ১ম বারের মতো ১নম্বর সর্বোচ্চ সেরা করদাতা হতে পেরেছি। আজ আমাকে খুব আনন্দ লাগলে পর পর টানা চতুর্থ বারের মতো সেরা করদাতা সম্মাননা গ্রহণ করায়। সকলের দোয়ায় আজ আমি এতো দূরে আসেছি। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন।

 

রংপুর বিভাগের গাইবান্ধা ব্যতিত ৭ জেলা ও রংপুর সিটি কর্পোরেশন নিয়ে গঠিত রংপুর কর অঞ্চলের সেরা ৫৬ জন করদাতাকে রংপুর কর অঞ্চলের পক্ষ থেকে সম্মাননা দেওয়া হয়েছে। এবছর প্রতিনি জেলা ও রংপুর সিটি কর্পোরেশন থেকে সর্বোচ্চ করদাতা তিনজন হয়েছে। দীর্ঘ মেয়াদী দুই জন হয়েছে, সর্বোচ্চ নারী কর প্রদান কারী এক জন হয়েছে, সর্বোচ্চ ৪০ বছরের নিচে তরুণ পুরুষ করদাতা হয়েছেন একজন মোট ৭ জন।

 

সর্বোচ্চ কর প্রদানকারী তরুণ করদাতা, সর্বোচ্চ কর প্রদানকারী মহিলা করদাতা এবং দীর্ঘ সময় কর প্রদানকারী—এই চার শ্রেণিতে ৫৬ জনকে সম্মানান দেওয়া হয়। এছাড়া ট্যাক্স কার্ডপ্রাপ্ত সেরা করদাতা হিসেবে একজন সম্মাননা পেয়েছেন।

 

এছাড়া একই সময়ে বাকি সেরা করদাতা অঞ্চলের আওতাভুক্ত কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারী, দিনাজপুর ঠাকুরগাঁও এবং পঞ্চগড় সার্কেল অফিসে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেয়া হয়।