পথে পথে ভালোবাসায় সিক্ত ‘সাফ চ্যাম্পিয়ন’ মেয়েরা

সাফ চ্যাম্পিয়নের ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। ঢাকায় পা রেখেই ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়েছেন সাবিনা-সানজিদারা। সেই সঙ্গে ছাদখোলা বাসে চড়ে সংবর্ধনা পাওয়ার ইচ্ছাও পূরণ হয়েছে।

বিমানবন্দর থেকে সাবিনাদের গাড়ি বের হওয়া মাত্রই দেখা যায়, রাস্তার দুই ধারে মানুষ। কেউ ছুটছেন, কেউ দাঁড়িয়ে হাত নাড়ছেন। যারা গাড়িতে আছেন তারাও সাবিনাদের খোলা ছাদ বাসের দিকে তাকিয়ে।

প্রতিটি সড়কে মানুষের জটলা। অনেকে ভিডিও ধারণ করছেন। আবার অনেকে কয়েক সেকেন্ডর মধ্যেই সেলফিবন্দী করে রাখার চেষ্টা। নির্মাণ শ্রমিক, ফুট ওভারব্রিজ সবাই দাড়িয়ে অভিবাদন দিচ্ছেন। সাবিনাদের বাস খানিকটা স্লো যাচ্ছে। পেছনে মিডিয়া ও ক্রীড়া সংশ্লিষ্টদের গাড়ি। গাড়িগুলো কিছুটা ধীরে ধীরে যাচ্ছে।

খোলা ছাদ বাসে সাবিনা ট্রফি নিয়ে দাঁড়িয়ে। তার সতীর্থরা দেশের ছোট পতাকা নাড়াচ্ছেন। সাবিনাদের বাসে উঠেছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। যার একান্ত আগ্রহে এক দিনের মধ্যে ছাদ খোলা বাসের ব্যবস্থা হয়েছে।

ছাদ খোলা বাসে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে উঠেছেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মেজবাহ উদ্দিন, বাফুফে সহ-সভাপতি আতাউর রহমান মানিক, দলের ম্যানেজার সহ সংশ্লিষ্ট অনেকেই।

ঐতিহাসিক সাফ জয়ের আগে নারী ফুটবলার সানজিদা আক্তারের আবেগঘন এক ফেসবুক পোস্টে ছাদখোলা বাসের প্রসঙ্গ উঠে এসেছিল। লিখেছিলেন, ‘ছাদখোলা চ্যাম্পিয়ন বাসে ট্রফি নিয়ে না দাঁড়ালেও চলবে, সমাজের টিপ্পনীকে একপাশে রেখে যে মানুষগুলো আমাদের সবুজ ঘাস ছোঁয়াতে সাহায্য করেছে, তাদের জন্য এটি জিততে চাই। আমাদের এই সাফল্য হয়তো আরও নতুন কিছু সাবিনা, কৃষ্ণা, মারিয়া পেতে সাহায্য করবে। অনুজদের বন্ধুর এই রাস্তাটুকু কিছুটা হলেও সহজ করে দিয়ে যেতে চাই।’

শিরোপা জয়ের পর কোটি সমর্থকেরও দাবি ছিল, চ্যাম্পিয়নদের যেন ছাদখোলা বাসেই বরণ করা হয়। বাফুফে এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের আপ্রাণ চেষ্টায় এক রাতেই দ্বিতল বাস কেটে ছাদখোলা বাস তৈরি করা হয়। সেই বাসেই বিমানবন্দর থেকে বাফুফে ভবনের দিকে এগোচ্ছেন সাবিনা খাতুনের দল।

এর আগে বিমানবন্দরে ফুল দিয়ে ও মিষ্টিমুখ করিয়ে নারী ফুটবলাদের বরণ করে নেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল ও বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির একটি অংশ। ঐতিহাসিক সাফ জয়ের ট্রফি দেশের মানুষকে উৎসর্গ করেছে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। অধিনায়ক সাবিনা খাতুন বলেন, এই শিরোপা দেশের সব মানুষের।

আরও পড়ুন