ঢাকা    ৭ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পুলিশের এসআই পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, উচ্চতায় এসেছে পরিবর্তন

প্রকাশিত: ৫:৫৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৯, ২০২১

পুলিশের এসআই পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, উচ্চতায় এসেছে পরিবর্তন

নজর২৪ ডেস্ক- বাংলাদেশ পুলিশে উপপরিদর্শক (এসআই-নিরস্ত্র) পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। এ জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। তবে কতজন নেওয়া হবে, তা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ নেই। অনলাইনে আবেদন চলছে। চাকরিপ্রত্যাশীরা আবেদন করতে পারবেন আগামী ৪ নভেম্বর পর্যন্ত।

 

এদিকে কতজনকে নিয়োগ দেওয়া হবে বিজ্ঞপ্তিতে তা উল্লেখ করা না হলেও পুলিশের মুখপাত্র সহকারী পুলিশ মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ কামরুজ্জামান গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, প্রায় ৫০০ জন এবার উপপরিদর্শক পদে নিয়োগ পাবেন।

 

তিনি বলেন, এই নিয়োগে পদসংখ্যা আগে থেকে নির্ধারিত নয়। পরীক্ষার সময় সারা দেশে যত শূন্যপদ থাকবে সে হিসাবে নিয়োগ দেওয়া হবে। নারী এবং পুরুষ উভয়ই যোগ্যতা অনুযায়ী নিয়োগ পাবেন। নারীদের জন্য আলাদা কোনো কোটা নেই বলেও জানান তিনি।

 

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, শুক্রবার (৮ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে আগামী ৪ নভেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করা যাবে। police.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটে লগ ইন করে আবেদন প্রক্রিয়ার ধাপগুলো অনুসরণ করতে হবে।

 

এবার এসআই পদে নিয়োগের শারীরিক যোগ্যতায় এসেছে পরিবর্তন। আগে ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি উচ্চতা নিয়েও এসআই পদে আবেদন করা যেত। তবে এবার সেটা ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি করা হয়েছে। নারীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি।

 

আবেদনকারীর বয়সসীমা ১৯ থেকে ২৭ বছর। চলতি বছরের ৮ অক্টোবর যারা এই বয়সসীমার মধ্যে থাকবেন তাঁরা আবেদনের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবেন। ২০২০ সালের ২৫ মার্চ যারা সর্বোচ্চ বয়সসীমায় পৌঁছেছেন, তাঁরাও আবেদন করতে পারবেন।

 

ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক। পাশাপাশি কম্পিউটারবিষয়ক দক্ষতা থাকতে হবে। এ ছাড়া প্রার্থীকে বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক এবং অবিবাহিত হতে হবে।

 

পরীক্ষার প্রক্রিয়াতেও এবার কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। ওয়েব বেজড প্রিলিমিনারি স্ক্রিনিং, শারীরিক মাপ ও কাগজপত্র যাচাইকরণ, লিখিত, মনস্তাত্ত্বিক, কম্পিউটার দক্ষতা ও বুদ্ধিমত্তার যাচাই পরীক্ষা, স্বাস্থ্য পরীক্ষা, পুলিশ ভেরিফিকেশন ও মৌলিক প্রশিক্ষণের পর একজন প্রার্থী এসআই পদের জন্য চূড়ান্তভাবে মনোনীত হবেন।

 

এ বছর ট্রেইনি কনস্টেবল নিয়োগেও উচ্চতা এবং পরীক্ষাপদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হয়েছিল।