ঢাকা    ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ইসরাইল স্বীকৃতির জন্য বারবার যোগাযোগ করেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১১:০৭ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০২১

ইসরাইল স্বীকৃতির জন্য বারবার যোগাযোগ করেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নজর২৪, ঢাকা- বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশের স্বীকৃতি পেতে ইসরাইল বারবার অ্যাপ্রোচ (যোগাযোগ) করলেও বাংলাদেশের সিদ্ধান্ত হচ্ছে ফিলিস্তিনিদের ওপর অত্যাচার শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের সাথে কোনো সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করা হবে না।

 

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতি কর্তৃক ঢাকায় নিযুক্ত ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত ইউসুফ এস ওয়াই রামাদানের কাছে জরুরি ওষুধ সামগ্রী হস্তান্তর অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন।

 

সরাসরি ইসরাইলের নাম উল্লেখ না করেই তিনি বলেছেন, ‘আমরা এখনো ওদের স্বীকৃতি দেইনি। যদিও তারা বারবার আমাদের অ্যাপ্রোচ করেছে। আমরা আমাদের ভাইদের জন্য, যে অত্যাচার তাদের ওপর হচ্ছে, এটা শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে ওদের সাথে আমাদের সম্পর্ক হবে না।’

 

বাংলাদেশ ঔষধ শিল্প সমিতির ফিলিস্তিনকে দেয়া ওষুধ সামগ্রী হস্তান্তর অনুষ্ঠানে মোমেন বলেন, ‘শুধু সরকার নয়, আমাদের দেশের মানুষেরও তাদের (ফিলিস্তিন) জন্য সিমপেথি রয়েছে। ফিলিস্তিন আমাদের বড় বন্ধু। আমাদের জাতির পিতার সময় থেকে ফিলিস্তিনের জনগণের সঙ্গে আমাদের আত্মার আত্মীয় সম্পর্ক। আমরা বিশ্বাস করি যতদিন স্বাধীন সার্বভৌম ফিলিস্তিন প্রতিষ্ঠিত না হবে আমরা ততদিন তাদের সঙ্গে আছি। আমরা ইসরায়েলকে গ্রহণ করব না। আমরা এখনও তাদের স্বীকৃতি দেইনি।’

 

১৯৬৭ সালের আইন অনুযায়ী ফিলিস্তিন ও ইসরায়েল রাষ্ট্রের সীমানা অনুসারে বাংলাদেশ দুই রাষ্ট্রের সমাধান চান বলেও জানান মোমেন।

 

চলমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বিভিন্ন দেশকে সরকারি সাহায্য পাঠানো হয়েছে। ফিলিস্তিনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের জনগণও অনুভূতির জায়গা থেকে দেশটির জন্য সাহায্য পাঠাচ্ছে।

 

এ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা করোনার মধ্যে অন্য দেশগুলোকে সরকারি সাহায্য পাঠিয়েছি। কিন্তু ফিলিস্তিনের ক্ষেত্রে সরকার এবং জনগণ সাহায্য পাঠাচ্ছে।’

 

বাংলাদেশিদের সহযোগিতা কখনও ভুলবে না ফিলিস্তিন : রাষ্ট্রদূত

 

ইসরায়েল ফিলিস্তিনের জনগণের ওপর যে হামলা করেছে তার পরিপ্রেক্ষিতে দেশটি কঠিন সময় পার করছে জানিয়ে রাষ্ট্রদূত রামাদান বলেছেন, কঠিন সময়ে ফিলিস্তিনের জনগণের পাশে থাকায় বাংলাদেশের মানুষ ও সরকারকে কখনও ভুলব না।

 

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বাংলাদেশের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করার মতো শব্দ আমার অভিধানে নেই। আমরা এই সহযোগিতার কথা কখনও ভুলব না। আর এটাই হচ্ছে আমাদের দু’দেশের জনগণের গভীর সম্পর্ক। গত ৫০ বছর ধরে আমাদের সম্পর্ক আরও দূঢ় হচ্ছে।’