সর্বশেষ সংবাদ

তানজিন তিশাকে পাঠানো সাংবাদিকের সেই মেসেজে আসলে কী ছিল?

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তোপের মুখে পড়েছেন ছোটপর্দার অভিনেত্রী তানজিন তিশা। তাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা। এর মধ্যেই সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ঢাকার মিন্টো রোডের ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন–অর–রশীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান অভিনেত্রী তানজিন তিশা। সেখানে প্রায় ১ ঘণ্টা অবস্থান করেন তিনি। সাইবার বুলিংয়ের বিষয়ে অভিযোগ জানাতেই ডিবি কার্যালয়ে গিয়েছিলেন বলে জানান তিশা।

ডিবি প্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে তিশা বলেন, ‘ডিবি কার্যালয় একটা আস্থার জায়গা। আমরা যারা সাইবার বুলিংয়ের শিকার হই, বিশেষ করে তারকারা এখানে আসে। হারুন স্যারের সাহায্য নেয়। আমিও ব্যতিক্রম নই। আমিও একজন তারকা। আমি বিগত দিনগুলোতে সাইবার বুলিংয়ের শিকার হচ্ছি। হ্যারেজমেন্টের শিকার হচ্ছি। ফলে আমার মনে হয়েছে, হারুন স্যারের কাছে আসলে তাদের একটা সাহায্য পাব। সেজন্যই এখানে আসা।’

আরও পড়ুন- 

বিগো লাইভে কী করছেন মৌসুমী! অবাক ভক্তরা

ভারত হারার পর যা বললেন ‘নগ্ন’ হতে চাওয়া সেই অভিনেত্রী

সাংবাদিকদের উড়িয়ে দেওয়ার হুমকির প্রশ্নে তিশা বলেন, একজন স্পেসিফিক সাংবাদিককে আমি ওই কথা বলেছি, সবাইকে বলিনি। চ্যনেল টুয়েন্টিফোরের এক সাংবাদিকের টেক্সট পেয়ে আমি তাকে ফোন কল করি। তার টেক্সটা নারী হিসেবে আমার কাছে বেশ সেনসেটিভ লেগেছে। এই প্রশ্নটা তিনি নারীকে করতে পারেন না’।

তিশা আরও বলেন, ‘সে কী প্রশ্ন করেছে সেটা আমি এতগুলো মানুষের সামনে মুখে আনতে পারব না। তবে আপনারা পারসোনালি দেখতে চাইলে দেখাতে পারব’।

অভিনেত্রী পাল্টা প্রশ্ন করেন, তারকা ও সাংবাদিক একে অপরের সহকর্মী। তাহলে সে কীভাবে এমন প্রশ্ন করলেন? প্রশ্নটি পেয়ে আমি তাকে ফোন কল করি। আমি হাইপার হয়ে যাই। তখন আমি ওই সাংবাদিককে স্পেসিফিকভাবে কিছু কথা বলেছি। সব সাংবাদিককে বলিনি।

যে বিষয়ে ওই সাংবাদিক প্রশ্ন করেছেন, সেটি তিশার কোনো সহকর্মীর মাধ্যমেই ছড়িয়েছে; এ বিষয়ে অভিনেত্রী বলেন, সেটা সেভাবে ছড়ালেও একজন নারী তারকাকে তিনি এই প্রশ্ন করতে পারেন না। আমি মনে করি এটা সাংবাদিকের ইথিক্সের মধ্যে পড়ে না।

এরপর অনেকেই মনে প্রশ্ন জাগে তানজিন তিশাকে পাঠানো সেই আপত্তিকর মেসেজে আসলে কী ছিল?। যা শুনেই তিনি ক্ষেপে গিয়ে সাংবাদিককের উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন।

এদিকে ডিবি অফিসে তানজিন তিশার বক্তব্যের পর অবশেষে সেই মেসেজের কথোপকথন প্রকাশ করেছে চ্যানেল টুয়েন্টিফোর। মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) রাতে এক প্রতিবেদনে পুরো ঘটনার স্কিনশর্ট দেখানো হয়।

খুদে বার্তায় দেখা যায়, চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের সাংবাদিক তামিম নিজের পরিচয় দিয়ে তিশার সঙ্গে কথা বলার আগ্রহ প্রকাশ করেন। পরে প্রশ্ন করেন ‘আপনি নাকি সম্প্রতি এবরশন করাইছেন। এমন খবর ছড়িয়েছে। কিছু বলবেন এ ব্যাপারে?’

প্রশ্ন শুনেই রেগে আগুন তিশা লেখেন ‘হোয়াট?।’ তখন সাংবাদিক লেখেন ‘হ্যাঁ, এটাই ছড়াইছে অলরেডি।’ তিনি আরও লেখেন, ‘আপনি ক্লিয়ার একটা স্টেটমেন্ট দেন প্লিজ। অনেক প্রশ্ন তৈরি হইছে। বিষয়টি বাড়তে দেওয়ার আগেই ক্লিয়ার করেন।’

এরপর চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের সাংবাদিককে ফোন করেন তিশা। হুমকি দেন এমন সংবাদ যারা প্রচার করবে সেসব সাংবাদিককে উড়িয়ে দেবেন। তাকে দেখাবেন নিজের ক্ষমতা।

আরও পড়ুন-

আরও পড়ুন-

আওয়ামী লীগের প্রার্থী হওয়ার তালিকায় অপু বিশ্বাসও

বিগো লাইভ অ্যাপে মৌসুমীর নাম নিয়ে মুখ খুললেন ওমর সানী

আরও পড়ুন

সিনেমায় সরকারি অনুদান বন্ধ করে দেওয়া ভালো: ডিপজল

দেশের চলচ্চিত্রকে আরও সমৃদ্ধ করতে প্রতিবছর অনুদান দিয়ে থাকে সরকার। অনুদানে নির্মিত সিনেমাগুলো নিয়ে আলোচনার চেয়ে সমালোচনাই বেশি দেখা যায়। চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের মতে, সরকারি...

চিন্তাও করিনি আমি মাত্র ১৬ ভোটে হারবো: নিপুণ

দীর্ঘরাত অপেক্ষা শেষে কাকডাকা ভোরে পাওয়া গেলো বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ফলাফল। শনিবার (২০ এপ্রিল) সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটের দিকে ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। এতে...

সেরা পঠিত