বিএনপি পরাজয়ের ভীতিতে আক্রান্ত, তাই নির্বাচনে আসে না: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকার সব দলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে বিশ্বাসী, নির্বাচনে অংশগ্রহণ সব দলের রাজনৈতিক অধিকার। এটি কোনো সুযোগ নয়। কিন্তু বিএনপি পরাজয়ের ভীতিতে আক্রান্ত। তাই তারা নির্বাচনে আসে না।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর সরকারি বাসভবনে অনলাইন ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন কাদের।

সরকার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী চায় না বলে বিএনপির পক্ষ থেকে আসা বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, ‘প্রকৃতপক্ষে বিএনপিই নির্বাচনকে ভয় পায়। শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা নিয়ে তাদের যত ভয়। আওয়ামী লীগ কখনো খালি মাঠে গোল দিতে চায় না, আওয়ামী লীগ চায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন।’

এসময় বিএনপির কাছে কাদের জানতে চেয়েছেন, ভোটে এলে তাদের নেতা কে হবেন। চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হওয়ায় তারা ভোটে অংশ নিতে পারবেন না। কাদেরের প্রশ্ন, ‘তাহলে তারা কীভাবে নির্বাচনে নেতৃত্ব দেবেন?’

কাদের প্রশ্ন রেখে আরও বলেন, ‘রাজনীতি না করার শর্তে যিনি মুচলেকা দিয়ে দেশ থেকে পালিয়েছেন, বিপদ দেখে এমন পলায়ন প্রিয় আর পলাতক আসামি কীভাবে বিএনপির নেতা হয়?’

আওয়ামী লীগ নাকি সন্ত্রাসী দল, বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগ নয়, প্রকৃতপক্ষে বিএনপিই দেশ-বিদেশে স্বীকৃত সন্ত্রাসী দল। কানাডার আদালতেও বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।’

আওয়ামী লীগ মাটি ও মানুষের সংগঠন এবং জনগণের আস্থার ঠিকানা এমন দাবি করে ওবায়দুল কাদের ব্রিফিং এ আরও বলেন, সন্ত্রাসবাদ ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা সরকার এবং আওয়ামী লীগের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর।

সন্ত্রাস তারাই করে, যারা জনবিচ্ছিন্ন এবং আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ এমন মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, জনকল্যাণে যাদের কোনো ইতিবাচক কর্মসূচি থাকে না, তারাই সন্ত্রাস, ষড়যন্ত্রকে ক্ষমতায় যাওয়ার হাতিয়ার হিসেবে বেছে নেয়-বিএনপিও তাই করছে।

আরও পড়ুন