ঢাকা    ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

এমপি জাফরকে বহিষ্কারের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ, আগুন

প্রকাশিত: ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ, জুন ১১, ২০২১

এমপি জাফরকে বহিষ্কারের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ, আগুন

নজর২৪, কক্সবাজার- কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলমকে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়ার খবরে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের অন্তত ২০ পয়েন্টে অবরোধ করে রেখেছে তার অনুসারীরা।

 

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) রাত ১০টার দিকে তার বহিষ্কারের খবর ছড়িয়ে পড়লে মহাসড়কের চকরিয়া অংশে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন তার অনুসারীরা। এতে দুই দিকে যান চলাচল বন্ধ হয়ে তীব্র যানজট দেখা দেয়।

 

তার সমর্থকদের দাবি, জেলা আওয়ামী লীগ নেতারা চকরিয়ার শান্ত পরিবেশ অশান্ত করতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পাশাপাশি তাকে বহিষ্কার করে রাজনৈতিকভাবে ফায়দা লুটে নেওয়ার চেষ্টা করছে।

 

স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে দলীয় পদ থেকে এমপি জাফর আলমকে অব্যাহতির খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন কয়েক হাজার নেতাকর্মী। প্রধান সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন নেতাকর্মীরা।

 

এসময় তারা চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়া অংশের বেশ কয়েকটি পয়েন্টে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন। এতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

 

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত রাত ১১টা চকরিয়া থানা রাস্তা মোড়ে নেতা-কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্যে রাখছিলেন এমপি জাফর আলম।

 

এর আগে বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বিকাল ৪টার দিকে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের জরুরী সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সাংসদ জাফরকে অব্যাহতির সিদ্ধান্ত হয় বলে জেলা উপ-প্রচার সম্পাদক এম এ মন্জুর স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

 

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত জরুরী সভায় জেলা নেতৃবৃন্দ এ সিদ্ধান্ত নেন।

 

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী জানান,‌‌ গত ৮ জুন চকরিয়া পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী ও চকরিয়া পৌরসভার নৌকা মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলমগীর চৌধুরীর ওপর হামলা ও দলীয় সিদ্ধান্ত ভঙ্গের কারণে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

 

এর আগে, কক্সবাজারের চকরিয়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলামকে বহিষ্কার করা হয়। গত মঙ্গলবার জেলা আওয়ামী লীগ তাকে বহিষ্কার করে।