ঢাকা    ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

অনুমতি মিললে আজই লন্ডন রওনা হবেন খালেদা জিয়া

প্রকাশিত: ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মে ৬, ২০২১

অনুমতি মিললে আজই লন্ডন রওনা হবেন খালেদা জিয়া

নজর২৪ ডেস্ক- করোনা আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশ নিতে চেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে আবেদন করেছেন তার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার। আবেদনপত্রটি পর্যালোচনার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অনুমতি মিললে আজকের মধ্যেই খালেদাকে লন্ডন নেয়া হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

 

সূত্র জানিয়েছে, সরকারের আনুষ্ঠানিক অনুমতি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই উন্নত চিকিৎসার উদ্দেশে লন্ডন রওনা করবেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

 

বিএনপি চেয়ারপারসন সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, বৃহস্পতিবার (৬ মে) যেকোনো সময় তাকে চার্টার্ড বিমানে করে সিঙ্গাপুর হয়ে লন্ডন নেয়া হবে। সঙ্গে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদল এবং পরিবারের সদস্যরাও থাকবেন।

 

এমনকি খালেদা জিয়াকে হাসপাতাল থেকে বিমানবন্দরে পৌঁছে দেয়ার অ্যাম্বুলেন্সও প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তারা। তবে তবে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান এ বিষয়ে নিশ্চিত করে এখনো কিছু জানাতে পারেননি।

 

এর আগে বুধবার রাত সাড়ে আটটার দিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ধানমন্ডির বাসায় খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার তাকে বিদেশ নেয়ার জন্য সরকারের কাছে আবেদন করেন।

 

এর প্রতিক্রিয়ায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তার (খালেদা জিয়া) চিকিৎসার জন্য সর্বোচ্চ সুযোগ করে দিয়েছেন। আপনারা জানেন, আদালত কর্তৃক তার দুইটি মামলায়…একটি মামলায় তো তিনি সাজাপ্রাপ্ত হয়েছিলেন। এবং তিনি সেই সাজা খাটছিলেন।

 

‘যখন তার পরিবার থেকে আবেদন আসল, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তার ক্ষমতাবলে, তার সরকারের ক্ষমতাবলে, সেই দণ্ডাদেশ স্থগিত করে, তাকে চিকিৎসার জন্য বাসায় থাকার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন এবং চিকিৎসা নেয়ার জন্য সুযোগ করে দিয়েছেন। এবং সেই হিসাবে তিনি (খালেদা জিয়া) চিকিৎসা নিচ্ছেন।

 

‘বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ভাই এসে জানিয়েছেন, তিনি (খালেদা) হসপিটালে ভর্তি আছেন। তাকে বিদেশ নেয়ার প্রয়োজন দেখা দিয়েছে। কারণ আমাদের দেশের ডাক্তাররা এই ধরনের অভিমত দিচ্ছে। আমরা যদিও ডাক্তারদের কাছ থেকে শুনি নাই।

 

‘আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এসব বিষয়ে অত্যন্ত উদার। আমরা পজিটিভলি সেটা দেখার চেষ্টা করব। আমরা কী আইনের পর্যায়ে হবে, সে জন্য কালকের মধ্যেই আইন মন্ত্রণালয়ে আবেদনটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে পরবর্তী ডিসিশন কী করা যেতে পারে, তাই আমরা অলরেডি সেটি (আবেদনটি) পাঠিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

 

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘দেখেন এর মধ্যে অনেক কিছু জড়িত আছে। বিদেশ যেতে হলে কোর্টের কোনও ইয়ে লাগবে কি না সেটার ব্যাপার আছে। সে জন্য আমরা আইনমন্ত্রী মহোদয়ের কাছে (আবেদন) পাঠিয়ে দিয়েছি। তার কমেন্টটা আসুক, তার পর আমরা সিদ্ধান্ত নেব। অবশ্যই আমরা পজিটিভলি দেখছি। পজিটিভলি দেখছি বলেই তাকে (খালেদা জিয়া) দণ্ডাদেশ স্থগিত করে তার চিকিৎসার সুবিধার ব্যবস্থা আমরা করে দিয়েছি। সে যদি উন্নত চিকিৎসা পায়, তার পছন্দমতো, তার চাহিদা অনুযায়ী, তার পছন্দ অনুযায়ী যেন চিকিৎসা পায়, তার ব্যবস্থা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী করে দিয়েছেন।’