সর্বশেষ সংবাদ

নিশোর নিজ উপজেলায় হল নেই, ‘সুড়ঙ্গ’ দেখতে অস্থায়ী সিনেমা হল বানাচ্ছে এলাকাবাসী

টিভি পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আফরান নিশো। তার অভিনীত প্রথম সিনমো ‘সুড়ঙ্গ’। ঈদে মুক্তি পেতে যাওয়া এই সিনেমার মধ্যদিয়ে বড় পর্দায় পা রাখছেন টিভি’র এই অভিনেতা। আর দর্শকরাও মুখীয়ে আছেন তার অভিনীত সিনেমাটি দেখার জন্য। বিশেষ করে নিশো ভক্তরা।

নিশোর প্রথম সিনেমা এলাকাবাসীদের দেখানোর জন্য নিজ উদ্যোগে অস্থায়ী হল প্রস্তুত করছে এ অভিনেতার নিজ গ্রামের ভক্তরা। নিশো টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ছেলে। এই উপজেলায় কোনো সিনেমা হল নেই। এই এলাকার বাসিন্দারা যাতে তার সিনেমা হলে বসে দেখতে পারেন, এ জন্য তার ভক্তরা পৌরসভার ‘স্বাধীনতা কমপ্লেক্স মিলনায়তন’ ভাড়া করে অস্থায়ী সিনেমা হল প্রস্তুত করছেন। আর তাই ভূঞাপুর উপজেলার কয়েকজন নিজ উদ্যোগে পৌরসভার স্বাধীনতা কমপ্লেক্সে ‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমা প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করছে।

জানা গেছে, এখানে ঈদের দিন থেকে টানা এক সপ্তাহ চলবে সিনেমাটি। স্বাধীনতা কমপ্লেক্স মিলনায়তনে প্রতিদিন চারটি করে শো চলবে। টিকিটের মূল্য ১০০ টাকা নির্ধারিত হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এ আয়োজনটির উদ্যোগ নিয়েছে বাদশা চকদার, ইমরান চকদার, জহুরুল চকদার, হাদী চকদার, রিপন মিয়া, সম্রাট তালুকদারসহ আরও কয়েকজন।

এ আয়োজকদের একজন হাদী চকদার জানান, আফরান নিশো ভাই আমাদের এলাকার ছেলে। উনার প্রথম সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে ঈদে। উনার প্রথম সিনেমাটি আমরা এলাকাবাসীদের সবার দেখার সুযোগ করে দিতে চাই এজন্য নিজ এলাকাতেই অস্থায়ী হলের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমাদের ভূঞাপুরের স্বাধীনতা কমপ্লেক্স অডিটোরিয়ামটি আমরা সাত দিনের জন্য ভাড়া নিয়েছি। সিনেমা প্রদর্শনীর জন্য পৌরসভা মেয়র ও উপজেলা প্রশাসনের অনুমতি নিয়েছি। কমপ্লেক্সটিতে ‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমা চালানোর জন্য প্রস্তুতি সম্পন্ন করছি। এখন কমপ্লেক্সের ভিতরে ফ্যান, লাইট এবং সাউন্ড সিস্টেম বসানোর কার্যক্রম চলছে। দুই-তিন দিনের মধ্যে সব কাজ সম্পন্ন হয়ে যাবে। আমরা নিশো ভাই ও পরিচালকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছি।

নিশোর ভক্তরা এমন একটি আয়োজন করতে যাচ্ছেন শুনে আফরান নিশো বলেন, ‘আমার নিজ এলাকার মানুষ আমার কাজকে ভালোবাসেন, আমাকে ভালোবাসেন। এটি প্রিয় তারকার প্রতি ভক্তদের চরম ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ। এই ঘটনা আমার জন্য প্রথম সিনেমার মতো, প্রথম প্রেমের অভিজ্ঞতা হবে। কারণ, এর আগে আমাদের দেশে কোনো তারকার জন্য ভক্তদের এমন পাগলামি আয়োজন দেখিনি। এটি আমার জন্য একটি অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার মতো। আমার প্রতি ভক্তদের এটি অন্য রকমের ভালোবাসা। আমার জন্য সবকিছুর ঊর্ধ্বে এটি।’

এইসব ভক্তদের সঙ্গে বসে সিনেমা দেখার ইচ্ছা প্রকাশ করে নিশো বলেন, ‘যারা এই আয়োজন করেছেন, তাদের সঙ্গে এখনও আমার যোগাযোগ হয়নি। ছবি মুক্তির আগেই চেষ্টা করব তাদের সঙ্গে কথা বলার। সিনেমার পুরো টিম নিয়ে তাদের সঙ্গে ‘সুড়ঙ্গ’ দেখতে চাই আমি। আমার জন্য ভক্তদের এত কিছু, তাদের জন্য এটুকু আমাকে করতেই হবে।’

এ বিষয়ে রায়হান রাফি বলেন, এরকম ঘটনা সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে বিরল। এর আগে কখনও এমন ঘটেছে বলে আমার জানা নেই। যেখানে জেলা প্রশাসন থেকে এমন উদ্যোগ নেওয়ার কথা সেখানে কিছু ছেলেরা উদ্যোগ নিয়ে হল ভাড়া করে সিনেমা দেখাতে চাচ্ছে। এটাতেই বোঝা যায় নিশো ভাইয়ের ক্রেজ কতটা! এমন উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই।

তিনি আরও বলেন, আমরা আমাদের পুরো ‘সুড়ঙ্গ’ টিম নিয়ে সে হলে ছবি দেখতে যাব। আমরা শিগগিরই তাদের সাথে কথা বলবো।

রায়হান রাফি পরিচালিত ‘সুড়ঙ্গ’তে আফরান নিশোর বিপরীতে অভিনয় করেছেন তমা মির্জা। রায়হান রাফীর সঙ্গে সিনেমার চিত্রনাট্য লিখেছেন নাজিম উদ্ দৌলা। চরকি ও আলফা আইয়ের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি।

আরও পড়ুন

তখন আমি এত পরিপক্ব ছিলাম না: তাসনিয়া ফারিণ

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ। বিনোদন জগতে অন্তর্জালের কল্যাণে এরই মধ্যে ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন ফারিণ। মডেলিং দিয়ে শুরু করেন তিনি। পরে টিভি নাটকে...

দ্বিতীয় স্বামীর কাছে ফিরতে চাইছেন মাহিয়া মাহি?

অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি বছর তিনেক আগে দ্বিতীয়বার বিয়ের মালা গলায় পরেছিলেন। ২০২১ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর গাজীপুরের রাকিব সরকারকে বিয়ে করেন তিনি। তাদের ঘরে ফারিশ...

সেরা পঠিত