ঢাকা    ৭ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



মাওলানা আজহারীকে নিষিদ্ধ করতে ব্রিটেনের সংসদে এমপির প্রস্তাব!

প্রকাশিত: ৭:১৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩, ২০২১

মাওলানা আজহারীকে নিষিদ্ধ করতে ব্রিটেনের সংসদে এমপির প্রস্তাব!

নজর২৪ ডেস্ক- জনপ্রিয় ইসলামি বক্তা মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর বক্তব্যে ব্রিটেনের মুসলিম কমিউনিটি বৃহৎ অংশ বিভ্রান্ত হতে পারে, সমাজে ঘৃণা ছড়াতে পারে, তাই তাকে ব্রিটেনে প্রবেশ করতে না দেওয়ার প্রস্তাব করেছেন ব্রিটিশ এম পি বব ব্ল্যাকম্যান। পার্লামেন্টে প্রশ্নোত্তর পর্বে মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী সম্পর্কে আলোচনার আহবান জানিয়েছেন ব্রিটিশ এমপি বব ব্ল্যাকম্যান।

 

তিনি মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) ব্রিটিশ পার্লামেন্টে তার নির্ধারিত বক্তব্যে বলেছেন, বাংলাদেশের ঘৃণা ছড়ানো ইসলামিক বক্তা মাওলানা আজহারীকে লণ্ডনে রয়েল রিজেন্সী হলে ইসলামী কনফারেন্সে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল, সে যুক্তরাজ্যে আসার জন্য কাতারে এসে আটকে আছে। এরকম ঘৃণা ছড়ানো ব্যক্তি যে হিন্দু ও ইহুদি ধর্মের প্রতি ঘৃণা ছড়ায় তাকে ব্রিটেনে ঢুকতে দেওয়া ঠিক হবে না। মিজানুর রহমান আজহারী ব্রিটেনে ঢুকলে তার বক্তব্যের মাধ্যমে এখানকার শান্তিপ্রিয় বৃহৎ মুসলিম জনগোষ্ঠী ভুল তথ্য পেয়ে বিভ্রান্ত হতে পারে। এমনকি সে অনলাইনেও এই ধরনের ঘৃণা ছড়াতে পারে।

 

ব্ল্যাকম্যান এমপি সংসদে মিজানুর রহমানের ভিসা বাতিল বহালের আলোচনার জন্য হোম সেক্রেটারী প্রীতি প্যাটেলের প্রতি আহবান জানান।

 

ব্ল্যাকম্যান এমপির এই বক্তব্যের পর সংসদ লিডার স্যার জ্যাকব রিস বলেন, বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ, এই দেশে ঘৃণা ছড়ানো একটি মারাত্মক অপরাধ। ঘৃণা ছড়ায় এমন কাউকে আমরা এই দেশে প্রবেশ করতে দিতে পারি না। ঘৃণা ছড়ানোর বিরুদ্ধে আমাদের একটি অবস্থান রয়েছে সেটার ভিত্তিতে হোম সেক্রেটারীর কাছে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে।

 

এদিকে লণ্ডনে আসতে গিয়ে কাতারে আটকেপড়া মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর বাতিল করা ভিসার বহালের জন্য লণ্ডনে হাইকোর্টে আপিল করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) এটি নিয়ে শুনানি করার কথা বিভিন্ন মাধ্যমে জানা গেলেও ব্রিটিশ হাইকোর্ট এবং আপার ট্রাইব্যুনালের কোনো কোর্টে এই মামলার শুনানির তালিকা পাওয়া যায়নি।

 

অন্যদিকে আজহারীকে ব্রিটেনে নিয়ে আসতে আয়োজক আতাউল্লাহ ফারুক একটি পিটিশন ক্যাম্পেইন শুরু করেছেন। মিজানুর রহমান আজহারী নিজে ও তার ফেসবুকে এই সংক্রান্ত একটি বক্তব্য প্রচার করে পিটিশনে তার পক্ষে স্বাক্ষর দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

 

আজহারী তার স্ট্যাটাসে লিখেন, গতকাল ইউকে পার্লামেন্টের হাউজ অব কমনস-এ গ্রেটার লন্ডনের নির্বাচনী এলাকা “হারো ইস্ট” এর কনজার্ভেটিভ পার্টির এমপি “বব ব্ল্যাকম্যান” আমাকে হেইট প্রিচার আখ্যা দিতে গিয়ে কিছু মিসলিডিং ইনফো শেয়ার করেছেন।

 

আমি সাধারণত আমাকে নিয়ে কটূক্তি কিংবা সমালোচনা— এসব বিষয়ে খুব একটা মনোযোগ দেই না। শুধুমাত্র গঠনমূলক সমালোচনা হলে সেটাকে ওয়েলকাম করি। কিন্তু তিনি তার বক্তব্যে কিছু অসত্য কথা বলেছেন। তিনি বলেছেন— আমাকে বাংলাদেশে ব্যান করা হয়েছে এবং আমি নাকি দেশ থেকে পালিয়ে গেছি। আমি তার এই মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

 

লন্ডনে একটি কনফারেন্সে যোগ দিতে গিয়ে কাতারেই আমাকে থেমে যেতে হয়। ভিসা দিয়েও যুক্তরাজ্যের হোম অফিস আমার যুক্তরাজ্য প্রবেশে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করে। ফলে কাতারে আমাকে সাময়িক বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে অনেকেই উদ্বেগ উৎকণ্ঠা প্রকাশ করেছেন। আপনাদের সবাইকে শুকরিয়া জানাচ্ছি। আল্লাহর মেহেরবাণীতে আমি ভালো আছি, নিরাপদে আছি।

 

আমরা হোম অফিসের এই অনাকাঙ্খিত সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে জুডিশিয়াল রিভিউর জন্য যুক্তরাজ্যের হাইকোর্টে আপিল করেছি। শিগগিরই শুনানির দিন তারিখ ধার্য করা হবে। আমরা আমাদের সাধ্যমতো আইনি প্রক্রিয়া চালিয়ে যাব ইনশাআল্লাহ।

 

ইউকের ভাইয়েরা একটি পিটিশন তৈরি করেছেন। দয়া করে সবাই পিটিশনে স্বাক্ষর করুন। এটা রিভিউতে আমাদের পক্ষে বেশ কাজে দেবে। সত্যের একটা আলাদা শক্তি আছে। সে শক্তিটা আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজে লাগাতে চাই।

 

গত বুধবার জানা গিয়েছিল, হাইকোর্টের জাজ হোম অফিসকে দুই দিনের সময় দিয়েছেন কেন মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর ভিসা বাতিল হলো সে বিষয়ে ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য। সেই হিসাবে সপ্তাহের শেষ দিন থাকায় আজ বিষয়টি সুরাহা হওয়ার ধারণা করা হচ্ছিল।

 

কিন্তু এরই মধ্যে ব্রিটিশ এমপির সংসদে বক্তব্যে মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী ভিসা বহালের আর সম্ভাবনা নেই বলে ধারণা করা হচ্ছে।