সর্বশেষ সংবাদ

জন্মদিনে বন্ধু শাহানাজ খুশিকে নিয়ে যা বললেন চঞ্চল চৌধুরী

চলচ্চিত্র ও নাট্যজগতের জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী ও শাহানাজ খুশি। এই জুটির কেমিস্ট্রি দর্শকদের মুগ্ধ করেছে বারংবার। কখনও তাদের দেখা যায় স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে আবার কখনওবা ভাই-বোনের চরিত্রে। যেকোনো চরিত্রেই নিজেদের সাবলীলভাবে মানিয়ে নেন তারা।

তাদের এই বন্ধন বাস্তব জীবনেও বেশ শক্তিশালী। দুজনের মধ্যে বেশ ভালো বন্ধুত্ব। একে অন্যের পরিবারের সঙ্গেও মিলেমিশে থাকেন তারা। দেখে বোঝার উপায় নেই তারা দুটি আলাদা পরিবার।

মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) গুণী অভিনেত্রী শাহনাজ খুশির জন্মদিন। প্রিয় বন্ধুর বিশেষ দিনের প্রথম প্রহরেই তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী। সোশ্যাল মিডিয়ায় খুশির সঙ্গে তোলা দুটি ছবি পোস্ট করেছেন তিনি।

চঞ্চল চৌধুরী লিখেছেন, যতদিন পর্যন্ত আমরা মন খুলে ঝগড়া, মারামারি করতে পারবো,ধরে নিবি ততদিন সুস্থ আছি। আমাদের যা বয়স, সব স্বপ্ন সন্তানদের ঘিরে। আমরা স্ট্যান্ডবাই থাকতে থাকতে ওরা যদি একটু দাঁড়িয়ে যায়, তাহলেই আমাদের শান্তি।

তিনি আরও লেখেন, তোর আর আমার মত শৈল্পিক, মাথাগরম, রগচটা, ঝগড়াটে, মারমুখী, সমালোচক বন্ধু আসলে এদেশে বিশ কোটিতে দুইজন। বেঁচে থাক বন্ধু বহুকাল। আমরা আমৃত্যু ঝগড়া করেই সুস্থ থাকতে চাই। শুভ জন্মদিন বন্ধু। অনন্ত শুভকামনা।

প্রসঙ্গত, চঞ্চল-খুশির দুজনেরই গ্রামের বাড়ি পাবনায়। একই এলাকার হলেও অভিনয়ে আসার পরই তাদের পরিচয়। প্রায় এক যুগ আগের ঘটনা। খুশি তখনো টিভি নাটকে অভিনয় শুরু করেননি। খুশির স্বামী নাট্যকার বৃন্দাবন দাসের ‘সবুজ অপেরা’ নাটকে অভিনয় করেন চঞ্চল। বৃন্দাবনের কাছে ওর প্রশংসা করলেন খুশি। তিনি জানলেন, চঞ্চল তাদেরই নাটকের দল ‘আরণ্যক’ এর সদস্য। এরপর ধীরে ধীরে তাদের বন্ধুত্ব পারিবারিক সম্পর্কে রূপ পায়।

আরও পড়ুন

সিনেমায় সরকারি অনুদান বন্ধ করে দেওয়া ভালো: ডিপজল

দেশের চলচ্চিত্রকে আরও সমৃদ্ধ করতে প্রতিবছর অনুদান দিয়ে থাকে সরকার। অনুদানে নির্মিত সিনেমাগুলো নিয়ে আলোচনার চেয়ে সমালোচনাই বেশি দেখা যায়। চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের মতে, সরকারি...

চিন্তাও করিনি আমি মাত্র ১৬ ভোটে হারবো: নিপুণ

দীর্ঘরাত অপেক্ষা শেষে কাকডাকা ভোরে পাওয়া গেলো বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ফলাফল। শনিবার (২০ এপ্রিল) সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটের দিকে ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। এতে...

সেরা পঠিত