সর্বশেষ সংবাদ

শাকিব খানের পক্ষ নিয়ে বুবলীকে ধুয়ে দিলেন ইলোরা

ঢালিউডের জনপ্রিয় জুটি শাকিব-বুবলীকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা যেন থামছেই না। নিত্য থেমে থেমে জ্বলে ওঠে নিভু আগুন। এই একটু কমার দিকে গেলে সলতেটায় কোরোসিন ঢেলে দেন কেউ একজন। এবারও তেমনটাই করলেন অভিনেত্রী ইলোরা গওহর।

এদিন শাকিবের পক্ষ নিয়ে কথা শুনিয়ে দেন বুবলীকে।

সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে ইলোরা বলেন, ‘জায়েদ খানের জন্য অনেকে রক্ত দিয়ে লেখা চিঠি পাঠায়। তাহলে শাকিব খান তো সুপারস্টার। একটা লোককে থাকতে দেন না। আমি বলব, নায়িকাগুলোর দোষ আছে। অপু বিশ্বাসের না হয় প্রেম ছিল। কিন্তু বুবলীর বাচ্চা নিতে হবে কেন? প্রোটেকশন কেন নাই? শাকিবকে ডুবানোর জন্য এমনটা করা হয়েছে। এখানে শাকিবের কোনো দোষ নেই।’

কিছুদিন আগে সাংবাদিক, অভিনেত্রী ও নাট্যকার ফাল্গুনী হামিদও একই সুরে কথা বলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘শুধু শাকিব খান নন, অপু-বুবলীও ভুল করেছেন। অভিনয়ে এসেই কেন একজন সুপারস্টারের প্রেমে পড়তে হবে, সন্তান গর্ভে ধারণ করতে হবে?’ তিনি আরও জানিয়েছিলেন, ‘দোষটা শুধু শাকিবের একার নন, এক্ষেত্রে মেয়েদেরও দোষ আছে।’ ফাল্গুনীর মুখে এমন কথা শুনে ভীষণ ক্ষুব্ধ হন বুবলী। ক্ষোভ উগরে দেন তার ফেসবুক পেজে।

অভিনেত্রী ইলোরা গওহরের এই বক্তব্যের পর সবার দৃষ্টি এখন বুবলীর দিকে। দেখার বিষয়, এবার তিনি কেমন প্রতিক্রিয়া দেখান।

উল্লেখ্য, গত ২৭ সেপ্টেম্বর সামাজিক মাধ্যমে বেবি বাম্পের ছবি প্রকাশ করেন চিত্রনায়িকা বুবলী। এরপরই হইচই পড়ে যায় নেটদুনিয়ায়। এর দুদিন পর এই চিত্রনায়িকা জানান, তার সন্তানের বাবা শাকিব খান। কিছুক্ষণ পর সন্তানের স্বীকৃতি দিয়ে শাকিবও জানান, শেহজাদ খান বীর তার ছেলে।

বুবলী জানান, যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড জ্যুইশ মেডিকেল হাসপাতালে ২০২০ সালের ২১ মার্চ শাকিব-বুবলীর সন্তানের জন্ম। আর তারা বিয়ে করেন ২০১৮ সালের ২০ জুলাই।

আরও পড়ুন

শাকিব খান এখনো আমার স্বামী: বুবলী

ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী সবসময় আলোচনায় থাকেন ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে। এবার একটি বেসরকারি চ্যানেলকে পারিবারিক অনকে কথাই বললেন অকপটেই। বর্তমানে শাকিব-বুবলীর সম্পর্ক দা কুমড়ার...

শিল্পীদের গার্মেন্টসে চাকরি দিতে নিপুণের অফার নিয়েছি: হেলেনা জাহাঙ্গীর

আমার গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রি আছে। এ অঙ্গনের যাদের চাকরি লাগবে তাদের আমি চাকরি দিতে পারব। এ জন্য কলি-নিপুণ পরিষদের যে অফার ছিল তা লুফে নিয়েছি।...

সেরা পঠিত