৯৯৯ কল পেয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ- কনের বাবাকে জরিমানা

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর চাটখিলে বাল্য বিয়ের অনুষ্ঠান পণ্ড করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালত কনের বাবাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার হাটপুকুরিয়া ঘাটলাবাগ ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইমরানুল হক ভূঁইয়া এ অভিযান পরিচালনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, বুধবার ওই ছাত্রীর বাল্য বিয়ের আয়োজন করা হলে এলাকাবাসী ৯৯৯ এ ফোন করে বিষয়টি জানালে কিছুক্ষণের মধ্যে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ইমরানুল হক ভূঁইয়া পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়ে এবং মেয়ের বাবা কে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে নিয়ে আসেন।

পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে মেয়ের বাল্য বিয়ের আয়োজন করার দায়ে বাল্য বিয়ে নিরোধ আইন -২০১৭ এর ৮ ধারায় মেয়ের বাবার ২০হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয় এবং মেয়েকে প্রাপ্ত বয়স না হওয়ার আগে বিয়ে দিবে না মর্মে মেয়ের বাবা থেকে মুচলেকা আদায় করা হয়েছে।

চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইমরানুল হক ভূঁইয়া বলেন, ৯৯৯ এর সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার দুপুরে উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের হেদায়েত উল্যা’র মেয়ে ও স্থানীয় হাটপুকুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী (১৫) বাল্য বিয়ে বন্ধ করা হয়।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মেয়ের বাল্য বিয়ের আয়োজন করার দায়ে বাল্য বিয়ে নিরোধ আইন -২০১৭ এর ৮ ধারায় মেয়ের বাবার ২০হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয় এবং মেয়েকে প্রাপ্ত বয়স না হওয়ার আগে বিয়ে দিবে না মর্মে মেয়ের বাবা থেকে মুচলেকা আদায় করা হয়েছে।

আরও পড়ুন