সর্বশেষ সংবাদ

গণফোরামে আবারও উত্তেজনা, থামাতে পারছেন না ড. কামাল

নজর২৪ ডেস্ক- শেষ পর্যন্ত নিজের হাতে গড়া গণফোরামকে ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করতে পারছেন না দলটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ড. কামাল হোসেন। গত কয়েক মাস দলটির কেন্দ্রীয় কমিটিতে বহিষ্কার-পাল্টা বহিষ্কারের ঘটনা ঘটে চলছিল। তারাই ধারাবাহিকতায় আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর গণফোরামের বর্ধিত সভা আহ্বান করেছে দলটির ভেঙে দেওয়া কমিটির এবং বহিষ্কৃত নেতারা।

 

আর সেই সভা থেকে গণফোরাম নামে আরেকটি দলের সূচনা হতে পারে। যদি তাই হয়, তাহলে এর নেতৃত্বে দেখা যাবে দলটির সাবেক নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টুকে।

 

২৬ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে গণফোরামের বর্ধিত সভা ডেকেছেন সুব্রত চৌধুরী। এই বর্ধিত সভার সঙ্গে কোনও সংশ্লিষ্টতা না থাকার কথা উল্লেখ করে মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠান গণফোরামের বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির সভাপতি কামাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া।

 

অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, ড. রেজা কিবরিয়া গণফোরামকে শেষ করে দিচ্ছেন। ১৮ মাস ধরে তিনি অফিসে আসেন না। কোনো কাজও করেন না। আমরা মিটিং ডাকতে বললে তাও ডাকেন না।

 

বর্ধিত সভা কে ডেকেছে জানতে চাইলে সুব্রত চৌধুরী বলেন, গত ১৮ মাস ধরে বললাম মিটিং দেন, এটা করেন ওটা করেন। তিনি (ড. রেজা কিবরিয়া) কিছুই করেন না, অফিসেও আসেন না। কমিটি ভেঙে দিল। তারপর কামাল সাহেবকে নিয়ে আহবায়ক কমিটি করলো। ইতোমধ্যেতো অনেক ঘটনা ঘটে গেছে। এ অবস্থায় ১৪ মার্চ একটা বর্ধিত সভা করলাম। কামাল সাহেবকে বললাম সংগঠনের মধ্যে এসব জটিলতার সৃষ্টি হচ্ছে। কিবরিয়াতো গঠনতন্ত্র মানে না। গঠনতন্ত্র ফেলে দেয়, বলে যে এরকম একশ’ গঠনতন্ত্র আমি নিজে করতে পারি। গুলশানের বাসায় ২/৩ জন করে ডেকে গ্রুপ করে।

 

ড. কামাল হোসেন-রেজা কিবরিয়ার পাঠানো মেইলের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে সুব্রত চৌধুরী বলেন, ওনারা চিঠি দিয়ে বলেছেন এই মিটিংয়ের সঙ্গে ওনাদের কোনো সম্পর্ক নেই, সেটাতো? ভালইতো, আমরাতো বলিনি, যে ওনাদের সম্পর্ক আছে। ১৪ মার্চের ধারাবাহিকতায় এই মিটিং। আমরাতো বলিনি কিবরিয়ার সংশ্লিষ্টতা আছে। কারণ উনিতো ১৮ মাসে দলটাকে জিরোতে নামিয়ে ফেলেছেন।

 

মিটিংয়ে ড. কামাল হোসেনকে দাওয়াত দিয়েছেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, দাওয়াত দিছি, দেখাও করেছি। সোমবার আমি বাসায় গিয়েছিলাম, কথা হয়েছে। তিনি বললেন, আসবেন। তার মধ্যে আবার দেখি সোমবারের তারিখ দিয়ে মঙ্গলবার প্রেস রিলিজ পাঠিয়েছে। তার মানে কি, আগেই রেডি ছিল। আমাকে বললো মীমাংসা করবে। পাল্টাপাল্টির দরকার নেই। মানে আমাদের সাথে যখন বলে খুব ভাল। আবার ওরা গিয়ে যখন বলে…, আসলে বয়স হয়ে গেছেতো, মনে রাখতেও পারে না।

 

পাল্টা কমিটি করবেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা কী করবো সেটা ২৬ তারিখের মিটিংয়ের পরে বোঝা যাবে।

 

কমিটি রেডি আছে কি না, এমন প্রশ্নে হেসে দিয়ে সুব্রত চৌধুরী বলেন, আপনারাতো অনেক রকম প্রশ্ন করতে পারেন। তবে আমরা গণফোরাম করবো নাকি অন্য কিছু করবো সেটা ২৬ তারিখেই বলবে।

আরও পড়ুন

বাংলাদেশের নির্বাচনে বাইরের থাবা পড়েছে: সিইসি

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ‘বাইরের থাবা এসেছে’ মন্তব্য করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, দেশের অর্থনীতি ও ভবিষ্যৎ বাঁচাতে নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও...

গণভবনের আশপাশে মোবাইল হারালেন সাকিব আল হাসান

গণভবনের আশপাশের এলাকায় নিজের মোবাইল ফোন হারিয়েছেন ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। এ ঘটনায় ডিএমপির শেরে বাংলা নগর থানায় সাধারণ ডায়েরিও (জিডি) করেছেন তিনি। রোববার (২৬...

সেরা পঠিত