সর্বশেষ সংবাদ

এবার বাংলা সিনেমায় অভিনয় করতে চান সালমান খান

বর্তমান সময়ের বলিউডের সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেতা সালমান খান। বলিউডে এখন তার ছবি মানেই ‘হিট’, বক্স অফিসে কোটি কোটি রুপির ব্যবসা! প্রযোজকরা তাই নির্দ্বিধায় যে কোনো ছবিতে তাকে নিয়ে বাজি ধরতে রাজি। শুধু পর্দায় নন, পর্দার বাইরেও নানা ঘটনার জন্য আলোচিত তিনি। কিন্তু তারপরও ভক্তদের কাছে সব সময় প্রিয় তিনি।

এবার বলিউড এই সুপারস্টার বাংলা সিনেমায় অভিনয়ের ইচ্ছাও প্রকাশ করলেন। সম্প্রতি কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী মঞ্চে তার এই ইচ্ছের কথা প্রকাশ করেন বলিউড ভাইজান।

প্রথমবার কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের মঞ্চে হাজির হয়ে সালমান খান জানান, তার ধারণা ছিল না কলকাতায় এত বড় মাপে চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করা হয়।

এমনকী এই চলচ্চিত্র উৎসব যে ইংরেজিতে ছোট করে (KIFF) বলা হয়, তাও অজানা ছিল এই সুপারস্টারের। তিনি ভেবেছিলেন (KISS) লেখা আছে। তবে ছোট করে যা-ই বলা হোক, কলকাতা থেকে যে তিনি প্রচুর ভালোবাসা পেয়েছেন, তা বলতে দ্বিধা করননি তিনি।

সালমান খান বলেন, মোট ২৩টি জায়গায় সিনেমা প্রদর্শন হবে। সত্যিই আমার ধারণা ছিল না এখানে এত বড় করে চলচ্চিত্র উৎসব হয়। কিছু কিছু বিষয়ে মানুষের লেখাপড়া বা জ্ঞান কম থাকে। আমারও তাই ছিল। আমায় ক্ষমা করবেন।

এর আগে ‘এবার আপনাদের সামনে বক্তব্য পেশ করবেন সুপারস্টার সালমান খান’- উৎসবের উপস্থাপিকা জুন মালিয়া এবং চূর্ণি গঙ্গোপাধ্যায়ের এই ঘোষণার পরই হাততালিতে ফেটে পড়ে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম।

কিন্তু বক্তব্য পেশ করতে এসেই বিরক্তি প্রকাশ করেন বলিউড ভাইজান! আবার পড়ে ক্ষমাও চান ভাইজান! হঠাৎ কী এমন হল ভাইজানের? মজার ছলেই এমনটা করেছেন সালমান খান। তিনি বলেন, সবাই তো সবকিছু বলে ফেলল। অনিল কাপুর, শত্রুঘ্নজি, সোনাক্ষী, সৌরভ। আমি আর কী বলব? একই কথা কি আবার বলব? একদম না। তাহলে চলে যাচ্ছি, নমস্কার।

কিন্তু সালমানের কথা শুনতেই তো বসেছিলেন দর্শকরা। তাই এমনটা বলেই কি আর চলচ্চিত্রের মঞ্চ ছাড়া যায়? না, এরপর বেশ খানিকক্ষণ নানা বিষয় নিয়েই কথা বলেন ভাইজান।

১৩ মে কলকাতার ইস্টবেঙ্গল মাঠে কনসার্ট করেছিলেন সালমান। তখন শহরে এসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করেছিলেন তিনি। সেই প্রসঙ্গ মনে করিয়ে দিয়ে সালমান বলেন, ‘গতবার দিদি অনুরোধ করেছিলেন। আমি কথা দিয়েছিলাম বলেই আজ এখানে এলাম।’ এর পরেই তার ছবির বিখ্যাত সংলাপ ধার করে সালমান বলেন, ‘কারণ, এক বার আমি কাউকে কথা দিলে তার পর আমি আর নিজের কথাও শুনি না।’

আগের বার কলকাতায় এসে মমতার বাড়িতে গিয়েছিলেন সালমান। মঙ্গলবার অভিনেতা বলেন, ‘আমি শুধু দেখতে চেয়েছিলাম যে, দিদি আমার থেকেও ছোট বাড়িতে থাকেন কি না। কিন্তু গিয়ে দেখলাম সত্যিই তাই।’

মঙ্গলবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রীর পাশের আসনেই বসেছিলেন সালমান। মাঝে মাঝে তাকে মমতার সঙ্গে কথা বলতেও দেখা যায়। তবে শুধু হিন্দি নয়, সালমান দর্শকদের উদ্দেশে বাংলাতেও কথা বলেছেন। তার মুখে, ‘কলকাতা কেমন আছ’ বা ‘আমি তোমাকে ভালবাসি’-র মতো সংলাপ শুনে প্রেক্ষাগৃহে তখন করতালির বন্যা। মঞ্চে অনিল কাপুরের সঙ্গে তার জনপ্রিয় ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ ছবির ‘জিন্দেগি কি এহি রীত হ্যায়’ গানেও গলা মেলাতে দেখা গেল সালমানকে। কথা প্রসঙ্গেই অনিল তাকে মনে করিয়ে দেন, সেই ছবির চিত্রনাট্যকার আসলে সালমানের বাবা সেলিম খান।

মুখ্যমন্ত্রী সালমানকে আবারও কলকাতায় আসার জন্য অনুরোধ করলে সালমানও কথা দেন, তিনি আবার এই শহরে আসবেন এবং শুটিং করবেন। বাংলার প্রতিভার প্রতি সম্মান জানিয়ে তার বক্তব্যের শেষে বলেন, ‘এখন বলিউড বেঁচে আছে কারণ সেখানে বাঙালিরা রয়েছেন। এত দিন আমরা আপনাদের কাজ দিয়েছি। এ বার আমাদের এখানে এসে কাজ করার পালা।’ এখন দেখার, সেই আশা সত্যিই পূরণ হবে কি?

আরও পড়ুন

হানিমুনে গিয়ে ‘খোলামেলা’ শ্রীময়ী, ছবি তুললেন কাঞ্চন মল্লিক

টালিউডে এখন চারদিকে কেবলই কাঞ্চন মল্লিক এবং শ্রীময়ী চট্টরাজকে নিয়ে চর্চা। কিছুদিন আগেই তাঁরা কাগুজে বিয়ে সেরে ফেলেছেন। আগামী মাসে করবেন সোশ্যাল ম্যারেজ। তার...

ক্যানসার নয়, দাঁতের চিকিৎসায় সিঙ্গাপুরে সাবিনা ইয়াসমিন

সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন উপমহাদেশের প্রখ্যাত শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন। তিনি তাঁকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য না ছড়াতে দেশবাসীকে অনুরোধ জানিয়েছেন। একটি অডিওবার্তায় তিনি জানিয়েছেন, নিয়মিত চেকআপের সময়...

সেরা পঠিত