সর্বশেষ সংবাদ

কোরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে মোংলায় বিক্ষোভ সমাবেশ

শেখ রাসেল, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি: সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় উগ্রবাদীদের দ্বারা মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কোরআন অবমাননা ও পোড়ানোর ধৃষ্টতা দেখানোর প্রতিবাদে মোংলায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে মোংলা উপজেলা ইমাম পরিষদ।

শুক্রবার (৭ জুলাই) জুমার নামাজ শেষে সকল মসজিদ থেকে মিছিল বের হয়ে পৌর শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাপলা চত্বরে সমাবেশ করছেন তারা।

সমাবেশে নেতাকর্মীদের নারায়ে তাকবির, আল্লাহু আকবার, দুনিয়ার মুসলিম, এক হও এক হও। আল কুরআনের অপমান, সইবে না রে মুসলমান। পালুদানের ওই হাত, ভেঙে দাও, গুড়িয়ে দাও। আল কুরআনের আলো, বিশ্বব্যাপী জ্বালো। আল হাদীসের আলো, বিশ্বব্যাপী জ্বালো ইত্যাদি স্লোগান দিতে সোনা যায়। মিছিলে ইসরাইল, সুইডেন বিরোধী বিভিন্ন প্লেকার্ড শোভা পায়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, মোংলা উপজেলা ইমাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা আ. রহমান, মোংলা বাজার জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা তৈয়বুর রহমান, আলিয়া মাদ্রাসা জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিনসহ বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনসহ হাজারো মুসলিম উপস্থিত ছিলেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, যারা আল কোরআনের অবমাননা করে তাদের বিরুদ্ধে আমরা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। কোরআনের অবমাননা কোনো মুসলমানদের পক্ষে মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। তাই আমরা এর প্রতিবাদে রাজপথে নেমেছি। সুইডেনে এর আগেও এমন নিন্দনীয় অপরাধের ঘটনা ঘটেছে। বারবার কেন এমন ঘটনা ঘটছে, এর কারণ উদঘাটন করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আমরা দাবি জানাচ্ছি।

বক্তারা আরো বলেন, গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি, সুইডেনে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় উগ্র ডানপন্থী রাজনৈতিক দল হার্ড লাইনের বিতর্কিত নেতা রাসমুস পালুদান পবিত্র কুরআনে অগ্নিসংযোগ করেছেন। যা শুধু কুরআন নয়; বরং বিশ্বের সকল মুসলমানসহ শান্তিকামী প্রতিটি মানুষের কলিজাকে দগ্ধ করার শামিল।

পৃথিবীর কোনো সভ্য জাতি বা দেশ কারো মৌলিক বিশ্বাসের ওপর এভাবে আঘাত হানতে পারে না। এর আগেও ২০২০ সালে সুইডেনে একই কাজ করেছিল উগ্রপন্থীরা। এ নীতিহীন ন্যক্কারজনক অপকর্মের ফলে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে সহিংসতার সৃষ্টি হয়েছিল, যাতে বহু মানুষ নিহত হয়েছিল। ফলে শুধু মুসলমান নয়; বরং বিশ্বের শান্তিকামী দেশ ও মানুষ থেকে ধিক্কার ও ঘৃণা কুড়িয়েছিল সুইডেন। এগুলো কোনোভাবেই বাক-স্বাধীনতা নয়; বরং বাক-স্বাধীনতার নামে চরম ধৃষ্টতা। এক্ষেত্রে সুইডেন সরকারের নীরব ভূমিকা বিশ্ববাসীকে হতবাক করেছে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ জুন সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমের কেন্দ্রীয় মসজিদের সামনে পবিত্র কুরআন পোড়ানো হয়। এ ঘটনা বাংলাদেশসহ বিশ্বের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের হৃদয়ে আঘাত হেনেছে। এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ।

এসএইচ

আরও পড়ুন

তীব্র তাপপ্রবাহে বেঁকে গেছে রেললাইন, ঢালা হচ্ছে পানি

তীব্র তাপপ্রবাহে ঈশ্বরদীতে বেঁকে গেছে রেললাইন। শুক্রবার দুপুরে ঈশ্বরদী বাইপাস রেলওয়ে ষ্টেশনের কাছে রেললাইনের পাত বেঁকে যায়। এতে করে রাজশাহীগামী কপোতাক্ষ ট্রেন প্রায় এক...

মহাসড়কে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করলেন ইউএনও

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: তৈরিকৃত ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছেন টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ নূরুল আলম। সোমবার (৮ এপ্রিল) ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের...

সেরা পঠিত